1. akfilmmultimedia@gmail.com : admin2020 :
  2. teknafchannel71@gmail.com : teknaf7120 :
বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ০১:২৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
টেকনাফ পৌর নির্বাচনে ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী হচ্ছেন দিল মোহাম্মদ সওদাগর ||টেকনাফ একাত্তর রামুকে হারিয়ে স্বপ্নের ফাইনালে টেকনাফ ||টেকনাফ একাত্তর নবগঠিত টেকনাফ উপজেলা যুবদলের কমিটিকে স্বাগত জানিয়ে হ্নীলা উত্তর -দক্ষিণ যুবদলের পথ সভা ও মিছিল উখিয়ায় আওয়ামী লীগ নেতার উপর হামলা, ইটপাটকেল নিক্ষেপ ||টেকনাফ একাত্তর টেকনাফে এশিয়ান টিভির ৮ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত টেকনাফে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা,অস্ত্র,কিরিচ ও কার্তুজ উদ্ধার ||টেকনাফ একাত্তর টেকনাফ ক্রাইম রিপোর্টাস সোসাইটির মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ইসলামি সন্মেলন পরিষদ কর্তৃক মানসিক রোগীদের তহবিল মারোত এর প্রতি সন্মাননা প্রদান ||টেকনাফ একাত্তর টেকনাফ প্রেসক্লাবের জরুরী সভা অনুষ্ঠিত টেকনাফ প্রেসক্লাবের জরুরী সভা অনুষ্ঠিত

রঙ্গিখালী হতে অস্ত্র উদ্ধার তদন্তে ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এপিবিএন) মোঃ আব্দুল্লাহ

  • আপডেট সময় : সোমবার, ৪ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৫৫ বার পড়া হয়েছে

বিশেষ প্রতিবেদক

টেকনাফ মুছনি নয়াপাড়া এপিবিএন পুলিশের আইসি ফয়জুল আজিম নোমানির বিচক্ষণতার কারণে অস্ত্র ও বুলেট দিয়ে দিন মুজুর ও টমটম চালকদের ফাঁসানোর চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় জনসাধারণ।পুলিশ কে মিথ্যা তথ্য দিয়ে সাধারণ নিরীহ জনগণকে হয়রানি করা ও পুলিশ এবং সেবা প্রত্যাশী জনগণকে ভ্রান্তির বেড়াজালে জড়িয়ে সংঘাত সৃষ্টির পথ রুদ্ধ করে দেয়ায় তিনি এখন প্রসংসা জোয়ারে ভাসছেন। তিনি বলেন,

গত ২৮/১২/২০২০ইং আমাদের কে জৈনক এক সাংবাদিক ফোন করে বলে যে, রঙ্গিখালী ৭নং ওয়ার্ডে গুরামিয়ার পুত্র মৃত জসিম উদ্দীনের বাড়িতে কিছু অস্ত্র আছে, আপনি এখনি আসলে দা উদ্বার করতে পারবেন। এমন সংবাদের ভিত্তিতে আমরাও অস্ত্র উদ্ধারের নিমিত্তে অভিযানে যায়, কিন্তুু গিয়ে দেখি তাহার চিত্র ভিন্ন। তার পরেও মাদক,অস্ত্র ও মানব পাচারের বিরুদ্ধে সরকারের দেয়া জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করে তাহার বাড়ির উঠান হতে বস্তাভর্তি কিছু অস্ত্র উদ্ধার করি এবং সন্দেহজন কভাবে তিনজনকে আটক করতে সক্ষম হয়। ঐ অভিযানের দেয়া তথ্য ও ঘটনা স্থলে গিয়ে অস্ত্র উদ্ধারের বাস্তবতা সন্দেহের সৃষ্টি হলে, পরে আটক কৃতদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের সাথে কথা বলে আটককৃতদের মধ্যে হতে দুজনকে (সরওয়ার ও মোঃ নুর) কে নির্দোষ হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ায় বিধি মোতাবেক তাদেরকে লিখিত ডকুমেন্ট নিয়ে ছেড়ে দি এবং অপরজন কে বিভিন্ন মামলা থাকায় তাকে সে মামলা গুলি দিয়ে টেকনাফ থানায় পাঠাতে সক্ষম হয়

কিন্তুু অস্ত্র দিয়ে নিরীহ মানুষ ফাঁসানো ও উদ্বার কৃত অস্ত্র গুলো কার হতে পারে তাহার সত্যতা নিশ্চিত করতে ৪ জানুয়ারি ২০২১ইং দুপুর ১ঘটিকার সময় ঘটনা স্থলে ছুটে এলেন মুছনি নয়াপাড়া ক্যাম্প কমন্ডার ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এপিবিএন) মোঃ আব্দুল্লাহ, জাদিমুড়া ক্যাম্প কামান্ডার ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(এপিবিএন) কামরুল হাসান এবং সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (এপিবিএন) তুফাজ্জল। তাহারা বলেন, যাহারা মিথ্যা তথ্য দিয়ে এপিবিএন পুলিশের সুনাম ক্ষুণ্ন করতে চাই ও বিভিন্ন দপ্তরে মোবাইল করে আমাদের বিরুদ্ধে ভুল বুঝানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে, তা আমাদের প্রমাণ আছে এবং তাদের আইনের আওতায় আনার চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর