1. akfilmmultimedia@gmail.com : admin2020 :
  2. teknafchannel71@gmail.com : teknaf7120 :
বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৫৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
টেকনাফ হাসপাতালের পিয়ন ২০হাজার ইয়াবাসহ আটক ! দীর্ঘ দিন ধরে অ্যাম্বুলেন্সে করে ইয়াবা পাচার করছে একটি চক্র টেকনাফে ডিএনসি’র অভিযানে আইস ও ইয়াবাসহ আটক -১ টেকনাফে অজ্ঞাত লাশের পরিচয় পাওয়া গেছে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জমি জবর দখলের অপচেষ্টা কক্সবাজারে ১১ বিদ্রোহী প্রার্থীকে সাময়িক বহিস্কার করলো জেলা আওয়ামী লীগ হ্নীলা ০৭ ওয়ার্ডে জামাল মেম্বারের চাল বিতরণের বাঁধা দেওয়া কে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, আহত দুই। ২০২৩ সাল থেকে নতুন শিক্ষাক্র তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত থাকছে না বার্ষিক পরীক্ষা ষ থাকবে না পিইসি-জেএসসি পরীক্ষা ষ নবম-দশমে বিভাগের বিভাজন থাকবে না ষ এসএসসি পরীক্ষা শুধু দশম শ্রেণির পাঠ্যক্রমে হবে ষ একাদশে বিভাগ নির্বাচন করবে শিক্ষার্থী টেকনাফ শাহপরীরদ্বীপে নির্বাচনী প্রচারনায় প্রতিদ্বন্দ্ধী প্রর্থীর হামলা : গুরুত্বর আহত ১৪ জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানানো জন্য সকলের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন : আরাফাত সানী টেকনাফে নির্বাচনী প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের সাথে মতবিনিময় করলেন কক্সবাজার জেলা প্রশাসক।

টেকনাফে অস্ত্র ঠেকিয়ে রক্তাক্ত জখম ৪ লক্ষ টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

  • আপডেট সময় : বুধবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৫১ বার পড়া হয়েছে

মোঃ আরাফাত সানী, টেকনাফ

অবৈধ অস্ত্র ঠেকিয়ে রক্তাক্ত জখম করে ব্যাংক থেকে উত্তলনকৃত ৪ লক্ষ টাকা ও মোবাইল  ছিনিয়ে নিয়েছে একটি অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা দল।

বুধবার (০১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের পশ্চিম সাতঘরিয়া পাড়া বাদির বসতবাড়ি পাশে এ ঘটনা ঘটে।
এ বিষয়ে সাতঘরিয়া পাড়া এলাকার আব্দুর রহমানের পুত্র কপিল উদ্দীন বাদী হয়ে একই এলাকার মোহাম্মদ হোসেনর ছেলে শামশু উদ্দিন প্রধান আসামি করে আজ সান্ধায় টেকনাফ মডেল থানার পাঁচ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দাখিল করেছেন।

থানায় দেওয়া অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, কপিল উদ্দীন স্হানীয় একটি ব্যাংক থেকে জমি ক্রয় করার জন্য নগদ ৪ লক্ষ টাকা উত্তোলন করেন। উক্ত টাকা নিয়ে নিজ বাড়িতে আসার পথে উপরোক্ত বিবাদীরা পথ গতিরোধ করে শরীলের বিভিন্ন অংশে মারধর করে ৪ লাখ টাকা জোর পূর্বক ছিনিয়ে নেয়। এতে কপিল উদ্দীন চিৎকার করলে বিবাদী আয়ুব উদ্দীন কপালে পিস্তল ঠেকিয়ে হুমকি প্রদান করলে বিবাদী শামশুউদ্দীন লম্বা বন্দুক দিয়ে আঘাত করতে থাকে। কপিল উদ্দীন বারি ঠেকাতে চাইলে বাদী সজোরে বন্দুক দিয়ে তার শরীলে নিলাফুলা জখম করে। বিবাদী মোঃ হোসেন ও আব্দুর রহিম বাদীর শরীলের বিভিন্ন অংশে কিল,ঘুষি ও লাতি মেরে মারাত্মক আহত তরে তা শো-র চিৎকারে তার পিতা আব্দুর রহমান ও মাতা মমতাজ বেগম এগিয়ে আসলে বিবাদীরা ক্ষীপ্ত হয়ে তাদেরকে মারধর করে গুরুত্বর জখম করে বিবাদী পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন ও আহদের আত্নীয়স্বজনেরা এসে তাদের কে উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শেষে তাদের অবস্থা অবনতি দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরন করেন।

বর্তমানে আহত বাদী কপিল উদ্দীন, পিতা আবদুর রহমান ও মামা মমতাজ বেগম কক্সবাজার সদর হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে বলে বাদী কপিল উদ্দীন সাংবাদিকদের জানান।

এ বিষয়ে আহতরা বিবাদী বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য টেকনাফ মডেল থানার ওসি মোঃ হাফিজুর রহমান ও র‌্যাবের প্রতি বিনিত অনুরোধ জানিয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর