1. akfilmmultimedia@gmail.com : admin2020 :
  2. teknafchannel71@gmail.com : teknaf7120 :
রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ১২:৫৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
মাত্র ৫ মাস ফ্রিল্যান্সিং শিখে সফল সুবহান আনছারি, মাসিক আয় প্রায় ১ লাখ টাকা যৌতুকের টাকা দিতে না পারায় ১০ মাসের শিশু সন্তান সহ স্ত্রী কে ঘর ছাড়া করলেন পাষণ্ড স্বামী! মৃ’ত মাকে কবরের মাটি খুঁড়ে বের করার চেষ্টা অবুঝ ছোট শিশুর! টেকনাফের নাফ নদী থেকে ২লাশ উদ্ধার নাফ নদীতে অর্ধ গলিত অজ্ঞাত মৃতদেহ উদ্ধার রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু করতে ইতিবাচক মিয়ানমার হ্নীলা ডিস্ট্রিবিউটর ব্যবসায়ী সমিতির ঈদ পরবর্তী শুভেচ্ছা বিনিময় ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ‘৩০ লাখে প্রশ্ন কিনেও’ ভালো ফল করতে পারেননি যে পরীক্ষার্থীরা! দুদকের মামলায় টেকনাফের পৌর কাউন্সিলর মনিরুজ্জামানের সম্পদ জব্দের নির্দেশ হ্নীলাতে কাজীর নতুন সহযোগীর দায়িত্ব পেল মুফিজুর রহমান

প্লাস্টিকের ব্যাগে পাচারকালে ১ লাখ ইয়াবা’সহ হ্নীলার দু’যুবক আটক হলেও সিন্ডিকেট অধরা…

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৩৭৪ বার পড়া হয়েছে

মোঃ আরাফাত সানি, টেকনাফ

 

কক্সবাজার টেকনাফের হ্নীলা পূর্ব সিকদারপাড়া এলাকায় র‌্যাব অভিযান চালিয়ে এক লক্ষ পিস ইয়াবা’সহ দুইজন মাদক কারবারীকে গ্রেফতার করেছে।

 

বৃহস্পতিবার (২৩ নভেম্বর) বিকেলে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করেন কক্সবাজার র‌্যাব ১৫ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার

সিনিয়র সহকারী পরিচালক (ল’ এন্ড মিডিয়া) মোঃ  আবু সালাম চৌধুরী।

 

তিনি জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের পূর্ব সিকদার পাড়া এলাকায় ইয়াবা ট্যাবলেট ক্রয়-বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে মাদক কারবারিরা অবস্থান করছে।

 

 এ সময় র‌্যাব-১৫, সিপিসি-২, হোয়াইক্যং ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি বুঝতে পেরে পালানোর চেষ্টাকালে দুইজন মাদক কারবারীকে আটক করা হয়।

 

এ সময় মাদক কারবারীদের হেফাজতে থাকা প্লাস্টিকের ব্যাগ তল্লাশী করে ১ লক্ষ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়।

 

গ্রেফতারকৃত মাদক কারবারীরা হলেন, হ্নীলা পূর্ব সিকদারপাড়া এলাকার শামশুল আলম (প্রকাশ) আতর শামশু ছেলে সাইফুল (প্রকাশ) আতর সাইফুল ও পশ্চিম সিকদারপাড়া এলাকার আবু তাহেরের ছেলে মোঃ জোবায়ের।

 

তিনি আরও জানান, উদ্ধারকৃত ইয়াবা সহ ধৃত ও পলাতক মাদক কারবারীদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দায়েরের পর টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

 

এদিকে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উক্ত ইয়াবা চালানের মূলহোতা সহ বিশাল একটি সিন্ডিকেট রয়েছে ওই এলাকায়। তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হলে প্রকৃত ইয়াবার মালিকে চিহ্নত করা যাবে না।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর