1. akfilmmultimedia@gmail.com : admin2020 :
  2. teknafchannel71@gmail.com : teknaf7120 :
শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ০৮:৩৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
টেকনাফে “ঊষার আলো ছাত্র ফোরামের মেধাবী শিক্ষার্থীদের পুরস্কার বিতরণর অভিষেক সভা অনুষ্ঠিত টেকনাফে বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ আটক-১ : ধরা ছোঁয়ার বাহিরে মূল হোতা হ্নীলা ৩ নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী রফিকুল ইসলাম দোয়া ও সমর্থন কামনা করছেন। জন্মদিনের শুভেচ্ছা দানকারী সকলের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করলেন সাংবাদিক মোঃ শেখ রাসেল শাহপরীর দ্বীপে ইসমাইল মেম্বারের সমর্থনে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত মিয়ানমারে বিক্ষোভকারীদের ওপর ফের গুলি, নিহত ১ ইয়াবাসহ দুই রোহিঙ্গা আটক | টেকনাফ একাত্তর টেকনাফ পৌর শহরে প্রভাবশালী চক্রের ইন্দনে টমটম,বাইক চুর সিন্ডিকেট সক্রিয়!! রামুতে র‍্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে ইয়াবা কারবারি নিহত ০১নং ওয়ার্ড টেকনাফ সদর ইউনিয়ন পরিষদের মোহাম্মদ ইয়াকুব এর খোলা চিঠি

সাগরে ভাসছে রোহিঙ্গা ভর্তি নৌযান, উদ্ধারের আহ্বান জানালো ইউএনএইচসিআর ||টেকনাফ একাত্তর

  • আপডেট সময় : সোমবার, ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ২৮ বার পড়া হয়েছে

ফাইল ছবি

ডেস্ক নিউজ,

জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর আজ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে যে, বেশ কিছু রোহিঙ্গা শরণার্থী ভর্তি একটি নৌযান আন্দামান সাগরে আটকা পরেছে। এসব রোহিঙ্গাকে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব উদ্ধার করার আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি।

বিবৃতিতে বলা হয়, শনিবার (২০শে ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা পর্যন্ত নৌযানটিতে কতজন শরণার্থী রয়েছেন তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে তারা বলছেন, নৌকাটির সবাই বাংলাদেশের কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে প্রায় ১০ দিন আগে যাত্রা শুরু করে।

ইউএনএইচসিআর বলছে, নৌযানটিতে আটকে পড়া শরণার্থীদের শারীরিক অবস্থা খুবই শোচনীয় এবং তারা মারাত্মক পানিশূন্যতায় ভুগছে। এরইমধ্যে বেশ কয়েক জন প্রাণ হারিয়েছে বলে জানাচ্ছে সংস্থাটি। আর গত ২৪ ঘণ্টায় আরো কয়েক জন প্রাণ হারাতে পারে বলেও আশঙ্কার কথা জানানো হয়েছে।

নৌযানটিতে থাকা রোহিঙ্গা শরণার্থীরা জানিয়েছে, কয়েক দিন আগেই খাবার এবং পানি শেষ হয়ে গেছে। সপ্তাহ খানেক আগে নৌযানটির ইঞ্জিন বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর থেকে সেটি সাগরে ভাসমান অবস্থায় রয়েছে।

তবে নৌযানটির অবস্থান সম্পর্কে এখনো নিশ্চিত হতে পারেনি সংস্থাটি।

এ বিষয়ে ইউএনএইচসিআর এর কর্মকর্তা ক্যাথরিন স্টাবারফিল্ডের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, সর্বশেষ সোমবার ভোরের দিকে ওই নৌযানটির সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে। নৌযানে থাকা শরণার্থীদের জরুরী ভিত্তিতে সহায়তা দরকার।

তবে আন্দামান সাগরে নৌযানটির অবস্থান নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলে সুনির্দিষ্ট কোন দেশের সাথে যোগাযোগ করা না হলেও ওই এলাকার পরিচালিত সব নৌ-কর্তৃপক্ষকে এবিষয়ে জানানো হয়েছে। সেই সাথে তাদের নিয়ন্ত্রণে থাকা জলসীমায় নৌযানটিকে খুঁজতে ও পাওয়া গেলে তাদের উদ্ধার করতে আহ্বান জানানো হয়েছে।

এবিষয়ে কক্সবাজার কোস্ট গার্ডের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছে যে, এ ধরণের কোন ঘটনার কথা তারা এখনো জানেন না।

১০ দিন আগে টেকনাফ থেকে কোন নৌযান সাগরে যাত্রা করার তথ্য জানা রয়েছে কিনা সে বিষয়ে জানতে চাইলে টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাও জানিয়েছেন যে, এ ধরণের কোন তথ্য তাদের কাছে নেই।

বিবৃতিতে বলা হয়, শরণার্থী এবং অভিবাসীদের ঝুঁকিপূর্ণ এই সাগর যাত্রা অব্যাহত থাকার বিষয়টি অনুসন্ধান করে তাদের উদ্ধার এবং ফিরিয়ে আনতে দ্রুত ও আঞ্চলিক সম্মিলিত প্রয়াস জরুরী হয়ে পড়েছে।###

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর