1. akfilmmultimedia@gmail.com : admin2020 :
  2. teknafchannel71@gmail.com : teknaf7120 :
সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৪:৪৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
মৌঃ ফরিদ আহমদের আব্বাছ টেলিকম এন্ড ইলেকট্রনিকস শোক, বাদ আছর জানাজা টেকনাফ থানা পুলিশের অভিযানে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা উদ্ধার, আটক ২ মুজিববর্ষ উপলক্ষে টেকনাফে প্রধানমন্ত্রী দেওয়া ৩০টি অসহায় ভূমিহীন পরিবারের মাঝে চাবি ও দলিল হস্তান্তর কক্সবাজার ঝিলংজার ১৪ মামলার আসামী শীর্ষ ইয়াবা ও আস্ত্র ব্যবসায়ী আমান গ্রেফতার। টেকনাফ স্থলবন্দরের এক শ্রমিকের মৃত্যু। রাজপ্রাসাদে ফিরছে ইয়াবা কারবারিরা টেকনাফ থানা পুলিশের অভিযানে সাজা প্রাপ্ত পালাতক আসামি আটক টেকনাফে ইয়াবা ও নগদ টাকাসহ রোহিঙ্গা যুবক আটক টেকনাফে কৈশোর-বান্ধব স্বাস্থ্যসেবা ও যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্য সেবার মান উন্নয়ন সভা অনুষ্ঠিত টেকনাফে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে যেভাবে সাগরে মাছ আহরণ করছে! নিখোঁজ জেলের সন্ধান মেলেনি 

টেকনাফে মামলার আসামীদেরকে গ্রেফতার না করায় বাদি ও বাদির অনাত্মীয়স্বজনকে প্রাণ নাশের হুমকিতে

  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ৮ জুন, ২০২১
  • ৩৫ বার পড়া হয়েছে

বিশেষ প্রতিবেদক,

টেকনাফ থানায় মামলা করার তিন মাস অতিবাহিত হওয়ার পরও কোন আসামীদেরকে গ্রেফতার না করায় মামলার বাদি ও মামলার বাদির অাত্মীয়স্বজন হুমকির মুখে। মামলার আসামীরা প্রকাশ্যে দিবালোকে ঘুড়ে বাড়াচ্ছে বলে এলাকার লোকজন জানান। ঘটনার বিবরণে জানা যায়, গত ২৩/০২/২০২১ইং তারিখ টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের উত্তর শীলখালীর তুলাগাছ তলা নামক এলাকায় মামলার বাদির স্বামী আমির হোসাইন পাসপোর্ট সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে মোঃউল্লাহর বাড়িতে গেলে তার সন্ত্রাসী পুত্র জসিম উদ্দিনের নেতৃত্বে মোঃআলীর পুত্র নুরুল আমিন, মৃত নুর মোহাম্মদের পুত্র জসিম উদ্দিন ও নুর আলীর পুত্র মোহাম্মদ আলী অতর্কিতভাবে এসে আমির হোসাইনের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা দাবি করে।তিনি চাঁদা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে জসিম উদ্দিনসহ তার অপরাপর সংগীরা ধারালো দা, কিরিচ ও লোহার রড নিয়ে আমির হোসাইনের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে শরীর রক্তাক্ত করে এবং আংগুল দিয়ে খোঁছা মেরে বাম চোখ বাহির করিয়া ফেলে।পাশাপাশি তার দোকানে বিক্রিত নগদ ৪৫হাজার টাকা এবং ১০হাজার টাকা মূল্যের একটি এন্ড্রুয়েড মোবাইল সেট ছিনিয়ে নিয়ে যায়।স্থানীয় লোকজন আমির হোসেনের আত্মীয়স্বজনকে খবর দিয়ে তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় প্রথমে টেকনাফ সদর হাসপাতালে সেখানে তার শরীরের অবস্থার অবনতি ঘটলে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়।সেখানেও আশংকাজনক হওয়ায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।সেখানে দীর্ঘ একমাস মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে আল্লাহর অসীম রহমতে নিজ বাড়িতে চলে আসেন।এদিকে গত ০৩/০৩/২০২১ ইং তারিখ আমির হোসাইনের স্ত্রী ইয়াসমিন আক্তার মোঃ উল্লাহর পুত্র জসিম উদ্দিনকে প্রধান আসামী করে ৪জনের বিরুদ্ধে টেকনাফ মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।যার মামলা নং-০৭/১৫৬ তারিখ ০৩/০৩/২০২১ইং। এই মামলা করার পর তালিকাভুক্ত মামলার আসামীরা গ্রেফতার না হওয়ায় তারা দিন দিন বেপরোয়া হয়ে পুনরায় আমির হোসাইনকে প্রাণ নাশকরার জন্য হুমকি দিয়ে আসছে বলে মামলার বাদি ইয়াসমিন আক্তার ও তার আত্মীয়স্বজন জানান। অনতিবিলম্বে পলাতক আসামীদেরকে গ্রেফতার করার জন্য মামলার বাদি ইয়াসমিন আক্তার কক্সবাজার পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বাহারছড়া তদন্ত পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইনস্পেক্টর নুর মোহাম্মদ জানান, মামলার আসামীদেরকে ধরার জন্য পুলিশ প্রতিদিনই অভিযান চালাচ্ছে। যতদিন পর্যন্ত গ্রেফতার হবে না ততদিন পর্যন্ত পুলিশি অভিযান অব্যাহত থাকবে।

চলবে…

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর