1. [email protected] : admin2020 :
  2. [email protected] : teknaf7120 :
শনিবার, ১৫ অগাস্ট ২০২০, ১১:১৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
টেকনাফে মারোতের উদ্যোগে মানসিক রোগিদের মাঝে রান্না করা খাবার বিতরণ–টেকনাফ ৭১ টেকনাফে মরিচ্যার ঘোনা থেকে স্কুল ছাত্র অপহরণ! টেকনাফে সুশীলনের উদ্যোগে ১৬০০ দরিদ্র পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ বিতরণ টেকনাফের যুবক ইয়াবাসহ পুলিশের হাতে আটক! টেকনাফে এনজিও সংস্থা উত্তোরণ এর প্রকল্প অবিহীত করন সভা অনুষ্ঠিত মেজর সিনহা হত্যার ঘটনায় আইনশৃংখলা বাহিনীর ব্যস্ততার সুযোগে মাদকের গডফাদাররা আবারো প্রকাশ্যে লোকালয়ে প্রদীপের অপকর্মের প্রতিবাদ করে বছর ধরে কারাবন্দি সাংবাদিক! জাতীয় শোক দিবস পালনে হ্নীলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রস্তুুতি সভা মেজর সিনহা হত্যা পর পুলিশের মামলার তিন স্বাক্ষী গ্রেফতার|| টেকনাফ ৭১ টেকনাফে ওসি প্রদীপের টর্চাল সেলের সন্ধান!

প্যালিনড্রোম 02 02 20 20 যা ৯০০ বছরে আসে নাই

  • আপডেট সময় : রবিবার, ২ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ১৭৫ বার পড়া হয়েছে

আজকের  রোববারের তারিখটি একটি বিরল প্যালিনড্রোম যা ৯০০ বছরেরও বেশি সময় আর আসে নাই।
রোববারের তারিখটি একটি আন্তর্জাতিক প্যালিনড্রোম। আপনি যে তারিখটি “দেশ / মাস / দিন / বছর” বা “দিন / মাস / বছর” হিসাবে লেখেন না কেন এটি কার্যকর হয় যেকোনো বিপরীত দিক থেকে।
এই জাতীয় তারিখগুলোকে “সর্বব্যাপী প্যালিনড্রোমস” বলে এবং এটি ১০১ বছরের জন্য আর কোনও পাওয়া যাবে না। এর পরে, আপনাকে ৩ মার্চ, ৩০৩০ অবধি অপেক্ষা করতে হবে।
এই জাতীয় প্যালিনড্রোমের শেষ তারিখটি ছিল 11/11/1111 – ৯০০ বছর আগে।
প্যালিনড্রোম হল এমন কিছু বিশেষ শব্দ আর সংখ্যা যার আরম্ভ বা শেষ দুদিক থেকেই পড়লে শব্দের উচ্চারণ আর অর্থের কোন বদল হয় না; বা সংখ্যার মান একই থাকে (সংখ্যার ক্ষেত্রে)। মূল গ্রীক শব্দ প্যালিনড্রোমাস (অর্থ: Running back again) থেকে ইংরেজি প্যালিনড্রোম শব্দটি এসেছে καρκινικός থেকে। বাংলা ভাষায় একে দ্বিমুখী শব্দ বা সংখ্যা বলা যায়।
এধরনের দ্বিমুখী শব্দ বা বাক্য সাজাতে যারা দক্ষ তাঁদের ‘পেলিনড্রোমিস্ট’ বলা হয়। প্যালিনড্রোমিক লেখা প্রাচীন ‘কিরাতার্জুনীয়’ কাব্যের বহু অনুচ্ছেদে দেখা যায়। এমনই একটি অনুচ্ছেদ হল- “সারস নয়না ঘন অঘ নারচিত রতার কলিক হর সার রসাসার রসাহর কলিকর তারত চিরনাঘ অনঘ নায়ন সরসা”, চতুর্দশ শতকে দৈবজ্ঞ সূর্য পণ্ডিতের লেখা ‘রামকৃষ্ণ বিলোম কাব্যম’ নামে ৪০টি শ্লোকের যে বিখ্যাত কবিতা রয়েছে তার রচনাশৈলীও ভারি অদ্ভুত। প্রতিটি শ্লোকই এক-একটি প্যালিনড্রোম।
আবার কবিতাটি সামনে থেকে পড়লে রাম ও রামায়ণের কাহিনি আর পেছন থেকে পড়লে কৃষ্ণ ও মহাভারতের কাহিনি। যেমন ৩ নং শ্লোকে রয়েছে “তামসীত্যসতি সত্যসীমতা মায়য়াক্ষমসমক্ষয়ায়মা। মায়য়াক্ষমসমক্ষয়ায়মা তামসীত্যসতি সত্যসীমতা।।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর